ম্যাচ বয়কটের পক্ষে গৌতম গম্ভীর

0
29

বিশ্বকাপ ফাইনালে পাকিস্তানকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেলে ম্যাচ বয়কটের পক্ষে গৌতম গম্ভীর

গৌতম গম্ভীর খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ারে যেমন সোজা ব্যাট খেলেছেন, তেমনি সোজা কথাটা সোজা করে বলতেই ভালোবাসেন। পাকিস্তান–বিরোধিতার প্রশ্নে তাঁর সাফ কথা, শর্ত সাপেক্ষে নিষিদ্ধ বলে কিছু নেই। হয় আমরা পাকিস্তানের বিপক্ষে সবকিছু বয়কট করব, নতুবা সবকিছুতেই অংশ নেব। এবং এই সিদ্ধান্ত ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকেই (বিসিসিআই) নিতে হবে বলে মনে করেন দেশটির সাবেক এ ওপেনার।

কাশ্মীরের পুলওয়ামায় কিছুদিন আগে জঙ্গি হামলায় ৪০ ভারতীয় জওয়ান নিহত হয়। এরপর থেকেই দুই প্রতিবেশী দেশের সম্পর্কে নতুন করে চিড় ধরে। সীমান্তে যুদ্ধ পরিস্থিতি সৃষ্টির পাশাপাশি ভারতের সাবেক ক্রিকেটাররা বিশ্বকাপের পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটের দাবি তুলেছিলেন। গম্ভীর নিজেও পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটের পক্ষে। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘শর্ত সাপেক্ষে নিষেধাজ্ঞা বলে কিছু নেই। হয় পাকিস্তান বয়কট করুন, কিংবা সবকিছুতে অংশ নিন। পুলওয়ামায় যা ঘটেছে, তা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

ইংল্যান্ডে আগামী ৩০ মে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ। গ্রুপ পর্বে ১৬ জুন পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে ভারত। এই সূচি অনুযায়ীই যে ম্যাচ মাঠে গড়াবে, তা আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছে আইসিসি। গম্ভীর তা জেনেই যুক্তি দিলেন, ‘আইসিসির টুর্নামেন্টে বয়কট করা যে কঠিন হবে, তা আমিও জানি। কিন্তু আমরা এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলা বন্ধ করতে পারি।’ অবশ্য বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ বয়কটের ব্যাপারে ইংল্যান্ডের উদাহরণও দিয়েছেন গম্ভীর, ‘২০০৩ সালে জিম্বাবুয়েতে খেলতে যায়নি ইংল্যান্ড। বিসিসিআই যদি পাকিস্তানের বিপক্ষে না খেলার সিদ্ধান্ত নেয়, তাহলে ২ পয়েন্ট ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে সবার মানসিক প্রস্তুতি থাকা উচিত। আমরা হয়তো সেমিফাইনালে নাও উঠতে পারি। এ জন্য ভারতীয় দলকে দোষ দেওয়া উচিত হবে না সংবাদমাধ্যমের।’

দুই দল ফাইনালে উঠলে কী হবে? তখন কি ম্যাচ বর্জন করা উচিত হবে বিরাট কোহলিদের? এই প্রশ্নের জবাবেও অনড় থেকে গম্ভীর বললেন, ফাইনালে উঠলেও ম্যাচ বয়কট করা উচিত। ‘দুই পয়েন্ট গুরুত্বপূর্ণ না, দেশ গুরুত্বপূর্ণ। যে ৪০ জওয়ান প্রাণ হারিয়েছে, তাদের চেয়ে একটা ক্রিকেট ম্যাচ বেশি গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে না। আমরা ফাইনাল ছেড়ে দিলে তা মেনে নিতে দেশের প্রস্তুত থাকা উচিত।’

এদিকে আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন কিন্তু বিশ্বকাপে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ না হওয়ার কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না। তাঁর যুক্তি, ‘আইসিসির প্রতিযোগিতায় সব সদস্যকেই অংশগ্রহণমূলক চুক্তি মেনে চলতে হয়। প্রতিযোগিতার সব ম্যাচে দল নামাতে হবে। সেটি না হলে পয়েন্ট দিয়ে দেওয়া হবে বিপক্ষ দলকে। আইসিসির নীতি পরিষ্কার, আমরা খেলাধুলায় রাজনীতি মেশাতে চাই না।’

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here