রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তর নিয়ে সংশয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

0
25

আগামী ১৫ এপ্রিলের মধ্যে ভাসানচরে এক লাখ রোহিঙ্গাকে স্থানান্তরে সরকারি সিদ্ধান্ত থাকলেও তা বাস্তবায়ন নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আবদুল মোমিন।
গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, আমরা চিন্তা করেছিলাম এপ্রিলে কক্সবাজার থেকে রোহিঙ্গাদের ভাসানচর পাঠাব। কিন্তু জাতিসঙ্ঘসহ অন্যান্য সংস্থা শর্তজুড়ে দিলে সমস্যা সৃষ্টি হবে। তাই রোহিঙ্গাদের কবে নাগাদ ভাসানচর পাঠানো যাবে তা বলতে পারছি না।
তিনি বলেন, আমরা রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠানোর জন্য প্রস্তুত রয়েছি। সেখানে প্রয়োজনীয় বাড়িঘর তৈরি করা হয়েছে। কিন্তু বিভিন্ন মহল বলছে, সেখানে গেলে তাদের অসুবিধা হবে। যদি সবাই মনে করেন অসুবিধা হবে তবে আমরা রোহিঙ্গাদের পাঠাব না।
বঙ্গবন্ধুর হত্যার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কানাডায় আশ্রয় নেয়া নূর চৌধুরী এবং বাংলাদেশের আদালতে একাধিক মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ফেরত আনাসংক্রান্ত এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা সব অপরাধীকে ফেরত আনার চেষ্টা করছি। এসব বিষয় একটি প্রক্রিয়ার মধ্যে হচ্ছে। সময়ের প্রয়োজন। তবে দ্রুত শেষ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
প্রসঙ্গত, রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছা সিদ্ধান্তের ভিত্তিতেই ভাসানচর স্থানান্তর প্রক্রিয়া হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করে জাতিসঙ্ঘ। বিশ্ব সংস্থাটির মতে, ভাসানচর প্রকল্প সম্পর্কে সরকারের কাছে থেকে শরণার্থীদের সঠিক, যথাযথ ও সময়োপযোগী তথ্য পেতে হবে, যাতে তারা মুক্তভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আলোচনা প্রক্রিয়ায় উদ্বাস্তুদের মতামত শুনে কোনো উদ্বেগ থাকলে তা নিরসন করা প্রয়োজন।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here