চার দিনের মাথায় বিয়ে বাতিল চান হলিউড স্টার

0
48

বিয়ে করার মাত্র চার দিনের মাথায় সেই বিয়ে বাতিল চেয়ে আদালতের কাছে আবেদন করেছেন মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেতা নিকোলাস কেজ। মেকাপ আর্টিস্টের সাথে এক বছরের প্রেমের পর এই সপ্তাহেই বিয়ে করেন তাকে; কিন্তু বিয়ের চারদিন যেতে না যেতেই আদালতে বিয়ে বাতিল চেয়ে মামলা করেন এই হলিউড অভিনেতা।

জানা গেছে, গত শনিবার গোপনে বিয়ে করেছিলেন কেজ ও মেকাপ আর্টিস্ট এরিকা কোইকি; কিন্তু বুধবারই আবার আদালতে হাজির হন কেজ। প্রথম তিনি বিয়ে বাতিল করার আবেদন করেন। তবে সেটি সম্ভব না হলে তালাক দিতে চান নবপরীণিতা স্ত্রীকে।

গত শনিবার লাস ভেগাসের এটি আদালতে বিয়ের রেজিস্ট্রেশনের জন্য আবেদন করে বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হন কেজ ও কোইকি। কিন্তু তিন দিনের মধ্যে এমন কী ঘটলো যে চার দিনের দিন বিয়ে বাতিল করতে চাইছেন এ নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। মার্কিন সংবাদ মাধ্যমও কৌতুহলি হয়ে উঠেছে বিষয়টি নিয়ে।

ফক্স নিউজের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে নিকোলাস কেজের সাথে যোগাযোগ করা হলেও তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এদিকে ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল জানিয়েছে, শনিবার যখন বিয়ের রেজিস্ট্রেশনের জন্য আদালতে গিয়েছিলেন তখনিই কেজের আচরণ উদ্ভট মনে হয়েছে। ওই ঘটনার একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে ডেইলি মেইল অনলাইন। ভিডিওতে দেখা গেছে আদালতে গিয়ে কেজ তার হবু স্ত্রীর উদ্দেশ্যে নানা অভিযোগ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে তিনি বলেন, এই নারী আমার সব সম্পদ দখল করতে যাচ্ছে। তার সাবেক প্রেমিক একজন ড্রাগ ডিলার। এসবের জবাবে কোইকি বলেন, ‘আমি তো তোমাকে এটি(বিয়ে) করতে বলছি না’।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, আদালতে পুরোটা সময়ই কেজ চিৎকার চেচামেচি করেছেন। তাকে মাতাল মনে হয়েছে সে সময়। আরেকটি সূত্র ডেইল মেইলকে জানিয়েছে, এমন কাণ্ডের পর তাদের একটি বিশেষ কক্ষে নিয়ে যাওয়া এবং সেখান থেকে তারা বিয়ের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে কাগজপত্র নিয়ে বের হয়ে যান।

তাই ধারণা করা হচ্ছে মাতাল অবস্থায় ঝোকের বসে বিয়ে করে তিনি এখন আবার তা বাতিল করতে চাইছেন।

এটি ছিলো ফেইস/অফ, ঘোস্ট রাইটার ন্যাশনাল ট্রেজারের মতো আলোচিত ছবিতে অভিনয় করা নিকোলাস কেজের চতুর্থ বিয়ে। ৫৫ বছর বয়সী অভিনেতা এর আগেও তিনটি বিয়ে করেছিলেন। প্রথম স্ত্রীর সাথে ৫ বছর, দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে ২ বছর ও তৃতীয় স্ত্রীর সাথে এক যুগ সংসার করেছেন।

অভিনয়ের জন্য বেশ কয়েকটি সম্মানজনক পুরস্কার জেতা নিকোলাস কেজ ১৯৮১ সালে টেলিভিশনের মাধ্যমে।  এরপর ১৯৮৯ সালে লিভিং লাস ভেগাস ছবির জন্য তিনি সেরা অভিনেতা হিসেবে েইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কার ও একাডেমি পুরস্কার জয় করেন। সব মিলে পুরো ক্যারিয়ারে এ পর্যন্ত ৬০টির বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা। তবে এবার সংবাদের এলেন বিয়ে নিয়ে অদ্ভুত কাণ্ড ঘটিয়ে।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here