উনার যেন মনে না হয়, বন্দি অবস্থায় চিকিৎসা হচ্ছে: ফখরুল

0
33
কারাগার থেকে চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তাকে ‘বিশেষায়িত হাসপাতালে’ স্থানান্তরের দাবি জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সোমবার দুপুরে খালেদাকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নিয়ে আসার পর কেবিন ব্লকের বাইরে দাঁড়িয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “আজকে আমরা আশা করব, সরকার চেষ্টা করবেন এখানে সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেওয়া যেন সম্ভব হয়। তাকে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ভালো পরিবেশ যেন তৈরি করা হয়।

“আমরা আগেও বলেছি, এখানে তাকে যেন এমনভাবে রাখা না হয় যাতে তিনি আবারও মনে করেন যে বন্দি অবস্থায় তার চিকিৎসা হচ্ছে। এ কথাটাই আমরা বার বার বলেছি, তাকে একটি বিশেষায়িত হাসপাতালে নেওয়া হোক।”

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট ও জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের দণ্ড নিয়ে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে আছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।

যেখানে তাকে রাখা হয়েছে, নাজিমউদ্দিন রোডের সেই পরিত্যক্ত কেন্দ্রীয় কারাগারের ‘স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে’ তার স্বাস্থ্যের মারাত্মক অবনতি হয়েছে বলে অভিযোগ করে আসছেন বিএনপি নেতারা।

৭৪ বছর বয়সী খালেদা জিয়া আর্থ্রাইটিসসহ বয়সজনিত বিভিন্ন সমস্যায় ভুগছেন। বিভিন্ন মামলার শুনানিতে আদালতে হাজির করার সময় তাকে হুইল চেয়ারে বসে থাকতে দেখা যায়।

মেডিকেল বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ী মার্চের শুরুতেও খালেদা জিয়াকে একবার বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে স্থানান্তরের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ পরে জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন রাজি না হওয়ায় তাকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নেওয়া যায়নি।

পরে বিএনপি নেতাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, বঙ্গবন্ধু মেডিকেলের ওপর খালেদা জিয়ার আস্থা নেই, তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে চান। এ নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে তাদের বাগযুদ্ধও চলে।

সেই তর্কের মধ্যেই সোমবার দুপুরে অসুস্থ খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে নিয়ে আসার পর ৬২১ নম্বর কেবিনে ভর্তি করা হয়।

এবার তাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে এ হাসপাতালে আনা হয়েছে কি না- এ প্রশ্নের উত্তরে মির্জা ফখরুল বলেন, “আমরা এটা বলতে পারছি না। তিনি এতই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন যে, তাকে দ্রুত হসপিটালাইজড না করলে অনেক রকম সমস্যা তৈরি হতে পারত।”

খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা নিয়ে নিজের উদ্বেগ প্রকাশ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, “আমরা সেজন্যই বার বার করে বলছি যে তাকে উন্নত চিকিসার জন্য বিশেষায়িত হাসপাতালে পাঠানো হোক। সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতে পারে যে তার টিট্রমেন্টটা কীভাবে হবে।”

আদালতের নির্দেশে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য যে মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে, সে বিষয়ে এক প্রশ্নে ফখরুল বলেন, “আদালতের নির্দেশনা আছে যে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিসকদের সঙ্গে পরামর্শ করেই যেন তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়। আমরা দাবি করব, এটা যেন করা হয়।”

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস এ সময় মির্জা ফখরুলের সঙ্গে ছিলেন।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here