টাইমস নাও-ভিএমআর এর জরিপ -সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়েই ক্ষমতায় ফিরছেন মোদি!

0
54
ছবিঃ ফাইল

ভারতে লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোট গ্রহনের দুই দিন আগেই টাইমস নাও-ভিএমআর-এর জনমত জরিপ জানিয়ে দিলো এবারের লোকসভা নির্বাচনে এগিয়ে রয়েছে বিজেপি।

সোমবার সন্ধ্যায় তাদের দ্বিতীয় সমীক্ষায় এমনটাই তথ্য উঠে এলো। সংস্থাটির দাবি, ভারতের চলতি সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে জিততে চলেছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। এই জোট পেতে পারে ২৭৯ টি আসন। ভারতের লোকসভায় মোট আসন সংখ্যা ৫৪৩ টি।

সরকার গড়ার জন্য ম্যাজিক ফিগারের সংখ্যা ২৭২ টি। টাইমস নাও-ভিএমআর-এর সমীক্ষা অনুযায়ি, সেই ম্যাজিক ফিগারের থেকেও বেশ কয়েকটি আসন বেশিই পেতে চলেছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট।

উল্লেখ্য, এর আগে যে কয়টি ওপেনিয়ন পোল হয়েছে তাদের প্রতিটিতেই বিজেপি ও এনডিএ জোটের দিকে বেশি সমর্থনের কথা বলা হয়েছিলো। এদিন টাইমস নাও-ভিএমআর-এর সমীক্ষাও একই তথ্য জানালো। তবে এই সমীক্ষায় স্পষ্ট করে বলা হয়নি, বিজেপি ঠিক কতোগুলি আসন পেতে পারে। বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ২৭৯ টির মতো আসন পেলেও বিজেপির আসন সংখ্যা গতবারের তুলনায় ৫০ থেকে ৬০ টি কমে যেতে পারে বলে মনে করছেন দেশটির রাজনৈতিক মহল।

অন্যদিকে, এই সমীক্ষায় ইঙ্গিত দিয়েছে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস ও কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোট গত বারের থেকে অনেক ভালো ফল করতে চলেছে। উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস পেয়েছিলো ৪৪ টি আসন। আর ইউপিএ জোট পেয়েছিলো ৬০ টি আসন। এবারে টাইমস নাও-ভিএমআর-এর ওপিনিয়ন পোল অনুযায়ি, ইউপিএ জোট পেতে চলেছে ১৪৯ টির মতো আসন।

পাশাপাশি ভারতের অন্যান্য আঞ্চলিক দলগুলি সব মিলিয়ে পেতে পারে ১১৫ টির মতো আসন। আঞ্চলিক দলগুলি ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে পেয়েছিলো ১৪৭ টি আসন।

প্রসঙ্গত, টাইমস নাও-ভিএমআর-এর প্রথম সমীক্ষার থেকে এবারের দ্বিতীয় সমীক্ষায় এনডিএ জোট ম্যাজিক ফিগার পেলেও তাদের প্রথম সমীক্ষার নিরিখে কমেছে আসন সংখ্যা। দ্বিতীয় সমীক্ষায় বেড়েছে ইউপিএর আসন সংখ্যা। তবে আসন সংখ্যা কমেছে অন্যান্যদের। টাইমস নাও-ভিএমআর-এর তাদের প্রথম সমীক্ষায় এনডিএ জোটকে দিয়েছিলো ২৮৩ টি আসন। ইউপিএ-কে দিয়েছিলো ১৩৫ টি আসন। অন্যান্যদের দিয়েছিলো ১২৫ টি আসন। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে এনডিএ পেয়েছিলো ৩৩৬ টি আসন। যারমধ্যে বিজেপি একাই পেয়েছিলো ২৮৩ টি আসন। ইউপিএ পেয়েছিলো ৬০ টি আসন, যারমধ্যে কংগ্রেস একা পেয়েছিলো মাত্র ৪৪ টি আসন। অন্যান্যদের দখলে গিয়েছিলো ১৪৭ টি আসন।

টাইমস নাও-ভিএমআর-এর দ্বিতীয় সমীক্ষা অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে আসন সংখ্যা কমতে চলেছে রাজ্যটির শাসক দল তৃণমূলের। পশ্চিমবাংলার মোট ৪২ টি লোকসভা আসনের মধ্যে গতবার তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছিলো একাই ৩৪ টি আসন। টাইমস নাও-ভিএমআর-এর দ্বিতীয় সমীক্ষা বলছে, এবারে তৃনমূল পেতে চলেছে ৩১ টি আসন।

প্রথম সমীক্ষায় সংস্থাটি পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ১১ টি আসন পেতে পারে বলে জানালেও দ্বিতীয় সমীক্ষায় তারা জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি পেতে চলেছে ৯ টি আসন। ২০১৪ সালে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি পেয়েছিলো মাত্র ২ টি আসন। এবারে সেই আসন সংখ্যা বিজেপির প্রায় সাড়ে চারগুণ বাড়তে চলেছে বলে সমীক্ষায় প্রকাশ।

টাইমস নাও-ভিএমআর-এর দ্বিতীয় সমীক্ষা অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গে কংগ্রেস পেতে পারে ২ টি আসন। প্রথম সমীক্ষায় অবশ্য বলা হয়েছিলো কংগ্রেস একটিও আসন পাবে না। তবে এই সমীক্ষায় উল্লেখযোগ্যভাবে পশ্চিমবঙ্গ থেকে মুছে যেতে চলেছে বামফ্রন্ট। প্রথম সমীক্ষা এবং দ্বিতীয় সমীক্ষাতেও পশ্চিমবঙ্গে বামফ্রন্টের জন্য কোনও আসন দেয়নি সংস্থাটি।

টাইমস নাও-ভিএমআর-এর সমীক্ষায় প্রকাশ, ভোট শতাংশের হারে পশ্চিমবঙ্গে বিরাট উত্থান ঘটতে চলেছে বিজেপির। টাইমস নাও-ভিএমআর-এর দ্বিতীয় সমীক্ষা অনুযায়ি, বিজেপি এই রাজ্যে ৩১,৩ শতাংশ ভোট পেতে পারে। শাসক দল তৃণমূল পেতে পারে ৩৭,৫ শতাংশ ভোট। বামফ্রন্ট পেতে পারে ১৫,৯৬ শতাংশ ভোট। কংগ্রেস পেতে পারে ১০,৪ শতাংশ ভোট। এবং অন্যান্যরা পেতে পারে ৪,৮৪ শতাংশ ভোট।

অন্যদিকে, ভারতের অন্যতম বৃহত্তম রাজ্য উত্তরপ্রদেশের ক্ষেত্রে টাইমস নাও-ভিএমআর-এর দ্বিতীয় সমীক্ষা বলছে, বিজেপির পাল্লা ভারি। সমীক্ষা বলছে উত্তরপ্রদেশের ৮০ টি আসনের মধ্যে বিজেপি জয়ী হতে চলেছে ৫০ টি আসনে। অখিলেশ যাদবের সমাজবাদী পার্টি এবং মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টি জোট করেও পেতে চলেছে মাত্র ২৭ টি আসন। কংগ্রেস পেতে পারে ৩ টি আসন। প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশে ৮০ টি আসনের মধ্যে বিজেপি একাই পেয়েছিলো ৭২ টি আসন। ২ টি আসন পেয়েছিলো কংগ্রেস, সমাজবাদী পার্টি পেয়েছিলো ৫টি আসন।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here