মাদ্রাসাছাত্রী রাফিকে শ্লীলতাহানি ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় কাউন্সিলর সহ আটক ২

0
45
ছবিঃ ফাইল

ফেনীর ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে শ্লীলতাহানি ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন। তাদের একজনকে ঢাকা ও একজন চট্টগ্রাম থেকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন সোনাগাজীর পৌর কাউন্সিলর মুকছুদ আলম ও তার সহযোগী সোনাগাজী পৌরসভার উত্তর চরচান্দিয়া গ্রামের বাসিন্দা জাবেদ হাসান। তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন পিবিআইয়ের ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. মনিরুজ্জামান। তিনি বলেন, আটকৃত দুই জনকে ফেনীতে আনা হচ্ছে ‘এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য গণমাধ্যমকে পরে জানানো হবে।’

গত ৬ এপ্রিল সকালে আলিম পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসায় যান নুসরাত জাহান রাফি। ওইদিন নুসরাতকে পরীক্ষা কেন্দ্রের ছাদে নিয়ে বোরখাপরা চারজন তাকে মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলার বিরুদ্ধে করা শ্লীলতাহানির মামলা তুলে নিতে চাপ দেয়। নুসরাত অস্বীকৃতি জানালে তারা আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়।

বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আইসিইউতে মারা যান নুসরাত। বৃহস্পতিবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে নুসরাতের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। হাজার হাজার মানুষের অংশগ্রহণে বৃহস্পতিবার বিকেল ৬টায় সোনাগাজী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে জানাজা হয়।

জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাদির কবরের পাশে তাকে দাফন করা হয়।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here