আবারও ঢাকায় সহ সারা দেশে অ্যানাবেল আতঙ্ক!

0
49

ভৌতিক ছবির দর্শকদের বেশ ভালোভাবেই জানা আছে ‘অ্যানাবেল’-এর কথা। ২০১৪ সালে মুক্তি পাওয়া এ ছবির হাঁড় হিম করা দৃশ্যের কথা মনে করলে এখানো গা ছমছম করে ওঠে। ভয়ঙ্কর এক পুতুলের গল্প নিয়ে নির্মিত ছবিটি মুক্তির পরপরই জায়গা করে নিয়েছিলো বক্স অফিসের শীর্ষে।

এরপর ২০১৭ সালে মুক্তি পায় এর সিক্যুয়াল ‘অ্যানাবেল: ক্রিয়েশন’। এটিও প্রত্যাশিত সাফল্যের ফসল ঘরে তোলে। যার ধারাবাহিকতায় এবার আসছে অ্যানাবেল ফ্র্যাঞ্চাইজির তৃতীয় ছবি এবং কনজ্যুরিং ইউনিভার্সের সপ্তম ছবি ‘অ্যানাবেল কামস হোম’। আগামী ২৮ জুন বিশ্বব্যাপী মুক্তি পেতে যাচ্ছে এ ছবি। একই দিনে বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লক্সেও মুক্তি পাবে ছবিটি। ছবির গল্প লিখেছেন গ্যারি ডবারম্যান। ‘অ্যানাবেল’ এর আগের দুটি কিস্তির গল্পও তিনিই লিখেছিলেন। তবে ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ এর মাধ্যমে পরিচালনায় অভিষেক হচ্ছে তার। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন জেমস ওয়ান এবং পিটার সাফরান।

আগের ছবিতে দেখা গেছে, আদরের মেয়েটির আকস্মিক মৃত্যুর ২০ বছর পরে এক পুতুল-নির্মাতা ও তার স্ত্রী তাদের বাড়িতে এক সন্ন্যাসিনী ও কিছু অনাথ বাচ্চাকে জায়গা দেন। তারপরে শুরু হয় ভয়ঙ্কর সব কান্ড। ঘটনার কেন্দ্রে রয়েছে অ্যানাবেল নামের পুতুলটি। কি সাংঘাতিক সব দৃশ্য! যারা দেখেছেন তারা জানেন। অ্যানাবেল এমনই আতঙ্ক তৈরি করেছে যে, এ ছবি দেখার পর নিজেদের বাড়ি থেকে অনেকেই ছোটদের খেলার সঙ্গী পুতুলকে বাড়ি থেকে ছুঁড়ে ফেলেছিলেন বলে জানা গেছে। শুধু ছোটরা নয় বাড়ির বড় সদস্যরাও ভয় পেতে শুরু করেন এমন খবরও এসেছে। এবারের ছবিতে দেখা যাবে, অ্যানাবেল এর ধ্বংসাত্মক আচরণ বন্ধ করার জন্য পুতুলটিকে লোরেন ওয়রেন তাদের ঘরের পুরোহিতের মন্ত্র পড়া একটি পবিত্র কাচের বাক্সে আটকে রেখেছিলেন। কিন্তু ভয়ঙ্কর এক রাতে অ্যানাবেল রুমের খারাপ আত্মাদের জাগিয়ে তুলে মুক্ত করে ফেলে নিজেকে। এরপর তাদের লক্ষ্য থাকে ওয়ারেনের দশ বছর বয়সী মেয়ে জুডি এবং তার বন্ধুদের ক্ষতি করা। ছবির ট্রেলার দেখার পর বলাবলি হচ্ছে, আবারও দর্শকদের বুকে কাঁপন ধরানোর পাশাপাশি বক্স অফিসেও কাঁপন ধরাবে অ্যানাবেল।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here