দেশে চিকিৎসাক্ষেত্র এতো উন্নত করার পরও আস্থা নেই কেন? প্রশ্ন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের

0
36
বিসি এন্ড ডিএস রাজশাহী শাখা আয়োজিত সভায় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌছে দিতে কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করেছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বর্তমানে প্রায় ১৩ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে। এছাড়া প্রতিটি থানা ও জেলা পর্যায়ে হাসপাতাল থেকে মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে সরকার। নতুন করে বিশেষায়িত হাসপাতাল নির্মাণ করেছেন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতের জন্য। তবুও ভারতে চিকিৎসা ভিসার জন্য প্রচুর ভীড় হয়। দেশে চিকিৎসাক্ষেত্র এতো উন্নত করার পরও আস্থা নেই কেন? সিস্টেম নাকি ডাক্তাররা ব্যর্থ, কোনটা, প্রশ্ন আমার?

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরীর পদ্মাপাড়ে সীমান্ত সম্মেলন কেন্দ্রে নকল ভেজাল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ওষুধ প্রতিরোধ শীর্ষক মতবিনিমিয় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ইন্টারনেটে যেকোন কোম্পানির ঔষধের নাম ও ব্যাচ নম্বর সার্চ দিয়ে সঠিক ঔষধ বোঝা যায় কিনা তার ব্যবস্থা করার প্রয়োজন। ঘরে বসে ভেজাল ঔষধ নির্ণয় করা সম্ভব করা গেলে মেয়াদর্ত্তীণ ও নকল ঔষধের কবল থেকে রক্ষা পাবে মানুষ। নকল, ভেজাল ও মেয়াদোর্ত্তীণ ওষুধ প্রতিরোধে প্রকৃত বিক্রেতা বা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ওষুধ দোকান মালিকদের ওষুধ ক্রয় করতে হবে। একইসঙ্গে সবাইকে সচেতনও থাকতে হবে।

বাংলাদেশ কেমিস্টস্ এন্ড ড্রাগিস্টস্ সমিতি রাজশাহী শাখা আয়োজিত সভায় সমিতির সভাপতি জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, ঔষধ প্রশাসনে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান।

তিনি বলেন, রাজশাহীতে কোন রেজিস্ট্রারবিহীন ঔষধ বাজারে থাকবে না। প্রত্যেক ডিভিশনে গিয়ে নকল ও ভেজাল ঔষধ নিয়ে সচেতনতামূলক প্রোগ্রাম করবো। ভেজাল ঔষধ নিয়ন্ত্রণে আনতে আমি তিনটি বিষয় গুরুত্ব দেয়। সচেতনতা, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ফার্মাসিস্ট ও লিগ্যাল অ্যাকশন। ১৪৬টি দেশে ঔষধ রপ্তানি করা হয়। ভারত ও চাইনার ঔষদের মান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ? কিন্তু আমাদের দেশের উঠেনি। নকল ও ভেজাল ঔষধ রপ্তানি ক্ষেত্রে যেন ইস্যু না হয় সেদিকে সর্তক অবস্থানে আছি।

বিসিডিএস কেন্দ্রীয় পরিচালক ও রাজশাহী শাখার সম্পাদক ড. ফয়সাল কবির চৌধুরীর সঞ্চালনায় ঔষধ প্রশাসনের পরিচালক রুহুল আমিন, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও শাখার সহ-সভাপতি এইচ এম শাহাদাৎ হোসেন, কেন্দ্রীয় পরিচালক আতাউর রহমান বক্তব্য রাখেন। ঔষধ প্রশাসনের সহকারী পরিচালক সালাহ উদ্দিন পাওয়ার পয়েন্টে প্রেজেন্টশন করেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন আয়োজকরা।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here