তারেককে ফেরতের সিদ্ধান্ত নেবে ব্রিটিশ আদালত

সচেতন বার্তা, ৯ জুলাই:বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেবে যুক্তরাজ্যের আদালত। এ ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্য সরকারের কোনো ভূমিকা নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারসন ডিকসন। গতকাল রাজধানীর বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ (বিস) মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

কূটনৈতিক সাংবাদিকদের সংগঠন ডিপ্লোম্যাটিক করেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিক্যাব) আয়োজিত ‘ডিক্যাব টক’-এ প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারসন ডিকসন। ডিক্যাব টকে যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত দ প্রাপ্ত আসামি তারেক রহমানকে দেশটির সরকার ফেরত পাঠাবে কিনা- এমন প্রশ্নের উত্তরে ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, তারেক রহমানকে বাংলাদেশে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেবে যুক্তরাজ্যের আদালত। এ ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্য সরকারের কোনো ভূমিকা নেই। এ ছাড়া যুক্তরাজ্য সরকার কোনো একক ব্যক্তির বিষয়ে কোনো মন্তব্য করে না। এক প্রশ্নের উত্তরে ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, রোহিঙ্গাদের ফেরতের ক্ষেত্রে সম্প্রতি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর চীন সফর ও মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফরে যে আলোচনা হয়েছে, তা উৎসাহব্যঞ্জক। তিনি জানান, রোহিঙ্গা প্রশ্নে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের মধ্যে বিভক্তি রয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় চায়, রোহিঙ্গারা স্বেচ্ছায় ও মর্যাদার ভিত্তিতে রাখাইনে ফিরে যাবেন। সে লক্ষ্যেই সবাই কাজ করছে।

বাংলাদেশের গণমাধ্যম যুক্তরাজ্যের চেয়ে বেশি স্বাধীনতা ভোগ করছে- বাংলাদেশ সরকারের একজন মন্ত্রীর এমন মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ব্রিটিশ হাইকমিশনারের মন্তব্য চাইলে তিনি বলেন, বৈশ্বিক গণমাধ্যমবিষয়ক প্রতিবেদনে গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বাংলাদেশের অবস্থান ১৫০তম। আর যুক্তরাজ্যের অবস্থান ৩৩তম। এ ক্ষেত্রে যুক্তরাজ্যের অবস্থা খুবই ভালো না হলেও এ থেকেই আপনারা বিষয়টি বুঝে নিতে পারেন। ব্রিটিশ হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম রপ্তানির বাজার যুক্তরাজ্য। দুই দেশে গত বছর বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ৬ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলার। এ ছাড়া যুক্তরাজ্য থেকে রেমিট্যান্স আয়ের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ষষ্ঠ বৃহত্তম দেশ। দুই দেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বিভিন্ন ক্ষেত্রে অগ্রসর হচ্ছে। অনুষ্ঠানে ডিক্যাব সভাপতি রাহীদ এজাজ ও সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম হাসিব বক্তব্য দেন।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here