ফতুল্লায় ঈদের ভোরেই যুবককে কুপিয়ে হত্যা

প্রতিকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ফিল্মি কায়দায় এক বন্ধুকে তাড়িয়ে দিয়ে আরেক বন্ধুকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

ঈদের দিন সোমবার ভোর রাতে ফতুল্লার পাগলা রেলস্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবক রাকিব (২০) ফতুল্লার নয়ামাটি মুসলিমপাড়া এলাকার মজিদ হাওলাদারের বাড়ির ভাড়াটিয়া নওশেদ বেপারীর ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুর জেলার নয়াপাড়ার নড়িয়ায়। তিনি ফতুল্লার নয়ামাটি এলাকায় কাদিরের ভাংগারির দোকানের কর্মচারী ছিলেন।

হত্যাকাণ্ডের সময় রাকিবের সঙ্গে থাকা তার বন্ধু আবদুল্লাহ জানান, পাগলা বাজার থেকে কেনাকাটা করে একটি রিকশায় রাকিবের সঙ্গে বাসায় ফিরছিলেন তিনি। পাগলা রেলস্টেশন এলাকায় আসলে একই এলাকার গিয়ার মানিকসহ ৪-৫ জন পথরোধ করে রিকশাটি আটকায়।

তিনি জানান, তখন দুর্বৃত্তরা আবদুল্লাহকে রিকশা থেকে নামিয়ে চোর চোর বলে ধাওয়া দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। এর কিছুক্ষণ পরতিনি এসে রাকিবের রক্তাক্ত লাশ পড়ে থাকতে দেখেন।

রাকিবের বাবা নওশেদ বেপারী জানান, তার দুই মেয়ে এক ছেলে। রাকিবই তার এক মাত্র ছেলে। ভাংগারির দোকানে কাজ করে সংসার চালাতো। কি কারণে রাকিবকে খুন করা হয়েছে তা তিনি জানেন না। তবে খুনিদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, তাৎক্ষণিকভাবে হত্যার কারণ জানা যায়নি। তদন্ত চলছে এবং জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here