আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিককে গণধর্ষণ, আটক ২

0
20

“রাজধানীর অদূরে সাভারের আশুলিয়ায় ২১ বছর বয়সী এক নারী পোশাক শ্রমিককে তুলে নিয়ে ‘গণধর্ষণের’ অভিযোগে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ।

‘আটককৃতরা হলেন- শেরপুর সদর উপজেলার সাতমাড়িয়া গ্রামের মৃত মুরাদ হোসেনের ছেলে কাইয়ুম (২৬) এবং পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার মুসোরিয়া গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে তুহিন আলম (৪৪)। কাইয়ুম স্থানীয় ফজল ভূঁইয়া নামে এক ব্যক্তির বাড়ির ভাড়াটিয়া ও তুহিন আলম ওই বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।’

‘পুলিশ জানায়, আশুলিয়ার উত্তর গাজীরচট এলাকায় ফজল ভূঁইয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন ওই নারী। গত তিন মাস ধরে তাকে ফোনে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন কাইয়ুম। এতে ওই নারী সাড়া না দেওয়ায় বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক তুহিনকে সঙ্গে নিয়ে গত সোমবার রাতে কৌশলে ওই নারীর মুখে রুমাল চেপে অচেতন করে একই বাড়ির অপর একটি কক্ষে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যান তারা। পরে ভুক্তভোগী নারী থানায় অভিযোগ করলে গতকাল রাতে উত্তর গাজীরচট এলাকা থেকে অভিযুক্তদের আটক করা হয়।’

‘আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক ফজিকুল ইসলাম জানান, ভুক্তভোগী ওই পোশাক শ্রমিককে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ‍ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। আটককৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।’ ”

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here