গাজীপুরে অবৈধ বসতি উচ্ছেদ অভিযান:

প্রায় ৩০ কোটি টাকা মূল্যের খাস জমি থেকে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ

0
58
উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চৌধুরী মুস্তাফিজুর রহমান। ছবিঃ সচেতন বার্তা।
আজ বৃহস্পতিবার গাজীপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সরকারী খাস জমি হতে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়। উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চৌধুরী মুস্তাফিজুর রহমান।
জানা যায়, আজকের এই উচ্ছেদ অভিযানে আনুমানিক ৩০ কোটি টাকা মূল্যমানের ৮৯ শতাংশ জমি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হয়েছে।
গাজীপুর সদরের নাওজর এলাকার ১ নং খাস খতিয়ানের এই ৮৯ শতাংশ জমিতে অবৈধ বসতি গড়ে তোলা হয়েছিল। এই বসতি নিয়ন্ত্রন করতো গাজীপুরের কয়েকজন ভূমিদস্যু। তারা দীর্ঘদিন যাবত সরকারী এই খাস জমি দখলে রেখে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।
ইতিপুর্বে এই ভূমিদস্যু, অবৈধ দখলদাররা প্রশাসনের এক শ্রেনীর কর্মকর্তা কর্মচারীদের ম্যানেজ করে নিয়ে একাধিক উচ্ছেদ অভিযানের উদ্যোগকে নস্যাৎ করতে সমর্থ হলেও বর্তমান গাজীপুরের প্রশাসন “নো টলারেন্স” ভূমিকায়। বিগত আরো বেশ কয়েকটি অভিযানেও বিপুল অর্থ সমমুল্যের খাস জমি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে মুক্ত করে।
উচ্ছেদ অভিযানে আনুমানিক ৩০ কোটি টাকা মূল্যমানের ৮৯ শতাংশ জমি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করা হয়েছে। ছবিঃ সচেতন বার্তা।
আজকের অভিযানে নেতৃত্ত দেওয়া গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট চৌধুরী মুস্তাফিজুর রহমান এর কাছে দৈনিক সচেতন বার্তার প্রতিনিধি এই উচ্ছেদ অভিযান প্রসংগে জানতে চাইলে তিনি জানান, “দীর্ঘদিন যাবত সরকারী এই খাস জমি অবৈধভাবে দখলে নিয়ে এই বসতি গড়ে উঠেছিল। ৮৯ শতাংশ জমির মুল্য প্রায় ৩০ কোটি টাকা। আজকের অভিযানে তিনি সম্পুর্ন জমি থেকে অবৈধ বসতি উচ্ছেদ করেছেন।”
দৈনিক সচেতন বার্তাকে তিনি আরো বলেন, আজকের অভিযানে বাসন ভূমি অফিস , সিভিল সার্জনের কার্যালয় এবং ব্যাটেলিয়ন আনসার সদস্যরা সহযোগিতা করেন। তাদের সার্বিক সহযোগিতায় উচ্ছেদ অভিযান সফল হয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এই তথ্যও নিশ্চিত করে জানান, গাজীপুরে প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে যতদিন পর্যন্ত সরকারী সব জমি থেকে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ সম্পন্ন না হয়।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here