সোনাগাজীতে শিশু ধর্ষণ, ৫৫ বছরের বৃদ্ধ আটক

0
95
প্রতীকী ছবি

“ফেনীর সোনাগাজীতে এবার ৬ বছরের এক শিশু শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নের আহম্মদপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

‘এ ঘটনায় অভিযুক্ত আইয়ুব আলী (৫৫) নামে এক বৃদ্ধকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় লোকজন। তিনি আমিরাবাদ ইউনিয়নের আহম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা।

‘পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ধর্ষণের শিকার ঐ শিশু স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রী। শনিবার বিদ্যালয় শেষে বাড়িতে এসে ওই শিশু গোসল করতে পুকুর ঘাটে যায়। এসময় বৃদ্ধ আইয়ুব আলী তাকে চকলেট কিনে দেওয়ার লোভ দেখায়। তার ডাকে শিশুটি সাড়া না দেওয়ায় পুকুর ঘাট থেকে শিশুটিকে মুখ চেপে ধরে জোরপূর্বক পাশের বাগান নিয়ে যায়। সেখানে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এসময় শিশুটি চিৎকার দিলে শিশুটিকে সেখানে রেখে আইয়ুব আলী দ্রুত পালিয়ে যায়। বাড়ীর লোকজন এগিয়ে এসে শিশুটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয় ভাবে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

‘স্থানীয় লোকজন অভিযোগ করে বলেন, ধর্ষক আইয়ুব আলীর পক্ষ হয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আবদুল বারেক ওরফে আরু মিয়া ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে শিশুটির পরিবারের সদস্যদেরকে থানায় যেতে বাধা দেন।

‘স্থানীয় আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জহিরুল আলম বলেন, শিশু ধর্ষণের ঘটনাটি শোনার পর তিনি পুলিশকে জানিয়ে ব্যবস্থা নিতে বলেছেন।

শিশুটির পরিবারের লোকজন বখাটে আইয়ুব আলীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি  ও ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

‘সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মঈন উদ্দিন আহমেদ ঘটনার সত্যতা ও ধর্ষককে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ জানায়, চলতি মাসে এই উপজেলার আমিরাবাদ ইউনিয়নেরই বিভিন্ন এলাকায় এই শিশু ধর্ষণসহ তিনটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। “

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here