সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বিচার দাবী, আওয়ামী লীগের:

সুনামগঞ্জে তৃণমূল নেতাকর্মীদের অভিযোগ দুর্নীতি, চাঁদাবাজি ও লুটপাটের

0
38
হলভর্তি তৃণমূলের কর্মীরা তার অভিযোগের পক্ষে মুরাদকে হাততালি ও শ্লোগান দিয়ে সমর্থন জানান।

মঙ্গলবার (০১/১০/১৯) সুনামগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলয়নায়তনে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, চাঁদাবাজি, লুটপাট, জাদুকাঁটা নদীসহ হাওরের প্রাকৃতিক সম্পদ লুটের অভিযোগ এনেছে আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা অভিযোগ আনেন দলীয় নেতাকর্মীরা।

সুনামগঞ্জ ১ আসনের সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বিরুদ্ধে স্বাধীনতা বিরোধী জামাত রাজাকার তোষনকারী বলে অভিযোগ তুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ও বিচার দাবী করেন দলীয় কর্মীরা।

মঙ্গলবার গত উপজেলা নির্বাচনে ধর্মপাশা উপজেলার আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামীম আহমেদ মুরাদ তৃণমুলের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের বিরুদ্ধে তৃণমূল নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে এসব অভিযোগ দায়ের করেন।

এ সময় হলভর্তি তৃণমূলের কর্মীরা তার অভিযোগের পক্ষে মুরাদকে হাততালি ও শ্লোগান দিয়ে সমর্থন জানান।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুল কবীর ইমন বারবার জনাব মুরাদকে বক্তব্য সংক্ষিপ্ত করতে বললেও তৃণমূলের কর্মীরা তার বক্তব্য অব্যাহত রাখার জন্য দাবী জানান।

শামীম তার বক্তব্যে দাবী করেন, এমপি হওয়ার আগে জনাব রতন কোনোদিন আওয়ামী লীগ করেননি। এমপি হওয়ার পর মোয়াজ্জেম হোসেন রতন পরিবারতন্ত্র কায়েম করেছেন এবং বিএনপি-জামাত ও রাজাকার পরিবারের সন্তানদের লালন করছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি।

উদাহরণ হিসেবে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কমিটিতে মোয়াজ্জেম হোসেন রতনের আপন ভাই ও কয়েকজন চাচার নাম ও তাদের পদ উল্লেখ করেন।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here