ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে গ্রেফতার কাউন্সিলর:

রাজীবের বাসা থেকে ৫ কোটি টাকার চেক, জমিজমার কাগজপত্রও জব্দ

0
40
রাজীবের বিলাসবহুল ডুপ্লেক্স বাড়িটির নীচে একটি গুপ্ত কক্ষ রয়েছে যেখানে রাজীব গোপনীয় কিছু কাজ করতেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব সূত্র।

রাজীবের সহযোগী (পিও) সাদেকের তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড

চলমান ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানে গ্রেফতারকৃত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তারেকুজ্জামান রাজীবের বাসা থেকে ৫ কোটি টাকার বিভিন্ন ব্যাংকের চেক বই ও জমিজমার বিভিন্ন কাগজপত্রও জব্দ করা হয়েছে।

এ সময়  আলামত ধ্বংস এবং কাজে অসহযোগিতার কারণে রাজীবের সহযোগী (পিও) সাদেককে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

রোববার (২০ অক্টোবর) সকালে র‌্যাব জানায়, শনিবার (১৯ অক্টোবর) দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে কাউন্সিলর রাজীবকে নিয়ে মোহাম্মদপুরে তার নিজ বাসায় অভিযান শুরু করে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ভোর চারটার দিকে বাসায় মোটামুটি অভিযান শেষ করে রাজীবকে নিয়ে তার অফিসে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে র‌্যাব-২ ছাড়াও র‌্যাব-১ এবং র‌্যাব সদর দফতরের একাধিক টিম কাজ করছে।

দুই অভিযান থেকে কী কী পাওয়া গেছে তা এক জায়গায় করে সংবাদ সম্মেলন আয়োজনের প্রস্তুতি চলছে। তবে র‌্যাব সূত্র থেকে জানা গেছে, গত কয়েকদিন আগে ৫ কোটি টাকা ব্যাংকে জমা দেওয়া হয়েছে তার কিছু কাগজপত্র পাওয়া গেছে। অনেকগুলো জমির দলিল পাওয়া গেছে। এছাড়া বিভিন্ন ব্যাংকের অনেকগুলো চেক বই পাওয়া গেছে।

কাউন্সিলর রাজীবের মোহাম্মদপুরের বাসাটি ২০১৬ সালের শেষের দিকে নির্মাণ করা হয়। মূলত তার আগের বছর তিনি কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। বিলাসবহুল ডুপ্লেক্স বাড়িটির নীচে একটি গুপ্ত কক্ষ রয়েছে যেখানে রাজীব গোপনীয় কিছু কাজ করতেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব সূত্র।

এর আগে শনিবার (১৯ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে কাউন্সিলর রাজীবকে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও অবৈধভাবে জমি দখলের অভিযোগে গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিন, ৭ বোতল বিদেশি মদ, একটি পাসপোর্ট ও ৩৩ হাজার নগদ টাকা জব্দ করা হয়। পরে তাকে নিয়ে মোহাম্মদপুরের বাসায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here