৬-জি ফোন নিয়ে কাজ শুরু

0
44

ফাইভ-জি নিয়ে আলোচনার মধ্যেই ৬-জি-এর খবর নিয়ে হাজির চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা ভিভো। মূলধারায় ৫-জি স্মার্টফোন আসার আগেই ৬-জি নেটওয়ার্ক সমর্থিত স্মার্টফোন তৈরির কাজ শুরু করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এখনো ৬-জি নেটওয়ার্ক প্রযুক্তি নিয়ে কারও তেমন ধারণাই নেই। এর মান কী হবে, কীভাবে কাজ করবে, সে বিষয়ে স্পষ্ট কোনো ধারণা নেই। তবে আগাম প্রস্তুতির অংশ হিসেবে ভিভো ৬-জির লোগোর পেটেন্ট করিয়ে রাখছে। সম্প্রতি ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ইনটেলেকচুয়াল প্রপার্টি অফিসে ওই পেটেন্টের জন্য আবেদন করেছে ভিভো।

যখন ৬-জি নেটওয়ার্ক চালু হবে এবং ভিভোর স্মার্টফোন বাজারে ছাড়া হবে, তখন ওই লোগোটি ভিভো স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হবে। ধারণা করা হচ্ছে, আগেভাগে বাজার ধরতে এবং প্রচারের জন্য ভিভো ৬-জি নিয়ে কাজ শুরু করেছে।

চীনের আরেক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে বর্তমানে ৫-জি প্রযুক্তি নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পরীক্ষা চালাচ্ছে। হুয়াওয়ের তথ্য অনুযায়ী, ২০৩০ সালের আগে ৬-জি চালু করা সম্ভব হবে না।

ভিভো সম্প্রতি চীনের বাজারে ৫-জি সুবিধার ফোন নেক্স থ্রি উন্মুক্ত করেছে। ৬ দশমিক ৮৯ ইঞ্চি মাপের ওয়াটারফল ডিসপ্লেযুক্ত ফোনটিতে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৫৫ প্রসেসর, ইন স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর সুবিধা রয়েছে।

পরবর্তী প্রজন্মের নেটওয়ার্কে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য দেশ থেকে এগিয়ে থাকতে চীন সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সাংহাইয়ের একটি জেলায় ৫-জি নেটওয়ার্ক চালু করতে যাচ্ছে দেশটি। বর্তমান ৪-জি নেটওয়ার্কের তুলনায় ৫-জি নেটওয়ার্কে ১০ থেকে ১০০ গুণ পর্যন্ত ডাউনলোড গতি পাওয়া যাবে।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here