শিক্ষার্থীদের হল ছাড়াতে পুলিশ ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ

 

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের নির্দেশের পরও দুর্নীতির অভিযোগে উপাচার্যের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ চালায়। তাই, তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো থেকে বের করে দিতে সাড়ে ৩টার পর প্রয়োজনে পুলিশের সহযোগিতা নেওয়া হবে বলে

কমিটির সভাপতি শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক বশির আহমেদ জানান, সাড়ে ৩টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়তে হবে,নাহলে তাদেরকে হল থেকে বের করে দিতে প্রয়োজনে পুলিশের সহযোগিতা নেওয়া হবে।

উপাচার্য ফারজানা ইসলামের পদত্যাগ করার দাবী রেখে এক সপ্তাহ ক্যাম্পাস অচল করে রাখার পর ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে আন্দোলনে নামা শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সোমবার রাতে ক্যাম্পাসে উপাচার্যের বাড়ি ঘেরাও করে।

মঙ্গলবার(৫ই নভেম্বর) সকালে উপাচার্য সমর্থক ওই বাড়িতে ঢুকতে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি হয় পরে দুপুরে ছাত্রলীগের একদল নেতা-কর্মীও তাদের উপর চড়াও হয়। এই হামলায় ২৫ জন শিক্ষার্থীসহ আট শিক্ষক ও আহত হন বলে জানা গেছে। মারধরের ঘটনার পর উপাচার্য সমর্থক শিক্ষকদের সঙ্গে নিয়ে কার্যালয়ে যান।

পরে জরুরি সিন্ডিকেট সভা বসে, সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়ে শিক্ষার্থীদের বিকালের মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। ছাত্র-ছাত্রীদের অনেকে হল ছেড়ে গেলেও আন্দোলনকারীরাসহ বেশ কিছু শিক্ষার্থী এখনো হল ছাড়েনি।

রাতে মেয়েদের হলগুলো থেকে ফটকের তালা ভেঙ্গে ক্যাম্পাসে মিছিলে অংশ নিয়ে পরে তারা হলে ফিরে যায়। বুধবার সকালেও হল থেকে বেরিয়ে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেয়। পরে দুপুরে প্রভোস্ট কমিটির সভা ও বসে।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here