বিদেশী মদের সাথে স্পিরিট মিশিয়ে বিক্রি:

রাজশাহীতে নকল মদ তৈরি সিন্ডিকেটের চার সদস্য গ্রেফতার

0
108
গ্রেফতারকৃত ভেজাল মদ তৈরির সিন্ডকেটের চার সদস্য ও উদ্ধারকৃত ভেজাল মদ তৈরীর সরঞ্জাম।

রাজশাহী নগরীতে রোববার (৩ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে নকল মদ তৈরির সরঞ্জামসহ এই সিন্ডিকেটের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সূত্র জানায়, নকল মদ তৈরির এই সিন্ডিকেট দীর্ঘদিন ধরে  ভেজাল মদ তৈরি করে আসছিল।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, নগরীর বোয়ালিয়া থানার সাগরপাড়া এলাকার পবিত্র সিংয়ের ছেলে পরিমল সিং (৬০), একই এলাকার পরিতোষ সিংয়ের ছেলে বাপ্পা সিং (২৮), সাগরপাড়া বল্লভগঞ্জ এলাকার হাসেম আলীর ছেলে সাজু (৩০) এবং রাজপাড়া থানার সিপাইপাড়া এলাকার আবদুর রউফ ওরফে মতিনের ছেলে ইফতেখার হোসেন ওরফে সুমন (৫০)।

আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, বিদেশি মদের সাথে রেক্টিফাইড স্পিরিটসহ অন্যান্য উপকরণ মিশিয়ে ভেজাল মদ বিক্রি করেছিলেন ওই চারজন।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, এই চারজনের কাছ থেকে তিনটি কাঁচের খালি বোতল, টিউনিং মদ (মিশ্রিত মদ) তৈরির তরল পদার্থ ভর্তি প্লাস্টিকের বোতল, তেতুলের বিচি ভর্তি কাঁচের বোতল, ৫০ গ্রাম গুড়ো রঙ, ২৯টি টিন ও প্লাস্টিকের তৈরি কর্ক এবং এ্যালকোহল ভর্তি দুটি প্লাস্টিকের বোতল উদ্ধার করা হয়েছে।

গত ১-৩ জানুয়ারি পর্যন্ত বিষাক্ত মদ পান করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে মারা যান ছয়জন। মদের বিষক্রিয়া নিয়ে এখনো হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ১৭ জন।

এরপরই পুলিশ এই মদের উৎস অনুসন্ধান শুরু করে। তারই সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে এই চারজনকে গ্রেফতার করা হয়।

আরএমপির মুখপাত্র আরো বলছেন, জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানিয়েছেন অতিরিক্ত লাভের আশায় বিদেশি মদের সাথে রেক্টিফাইড স্পিরিটসহ নানা উপকরণ মিশিয়ে নকল মদ তৈরি করেন তারা।

মৃত ও অসুস্থরা তাদের কাছ থেকেই মদ সংগ্রহ করেছিলেন। এ নিয়ে নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানায় মামলা করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও পুলিশ জানায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here