দুধ বিক্রি করতে করতে হেলিকপ্টারের মালিক

0
21
মহারাষ্ট্রের কৃষক জনার্দন ভইর।

ভারতের মতো কৃষিপ্রধান দেশে কৃষকদের দুর্দশা কম কিছু নয়। কিন্তু এর মধ্যেও ব্যতিক্রম হিসেবে শিরোনামে উঠে এসেছেন মহারাষ্ট্রের কৃষক জনার্দন ভইর। কারণ, দুধ বেচতে বেচতে তিনি একটি হেলিকপ্টার কিনে ফেলেছেন। যার দাম প্রায় ৩০ কোটি রুপি। ভারতজুড়ে চলা কৃষক আন্দোলনের মাঝেই এক সম্পূর্ণ ভিন্ন চিত্র ফুটে উঠল মহারাষ্ট্রে।

হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও বাস্তবে এমনটাই ঘটেছে। মহারাষ্ট্রে ভিওয়ান্ডি এলাকার বাসিন্দা জনার্দন ভইর দুধের ব্যবসা করেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে তার ব্যবসা ছড়িয়ে আছে। নিজের কাজের জন্য অনেক সময় ওই কৃষককে দেশের অন্য জায়গায় যেতে হয়। আর এ কারণেই তিনি হেলিকপ্টার কিনে নিয়েছেন। এখন থেকে নাকি হেলিকপ্টারে করেই ব্যবসা এগিয়ে নিয়ে যাবেন তিনি। ইতিমধ্যে নিজের বাড়ির পাশে একটি হেলিপ্যাডও বানিয়ে ফেলেছেন। পাশাপাশি, পাইলট রুম, টেকনিশিয়ান রুমও বানিয়েছেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে তিনি বলেন, “দুধের ব্যবসার জন্য আমাকে প্রায়ই পাঞ্জাব, হরিয়ানা, রাজস্থান ও গুজরাটের মতো একাধিক রাজ্যে সফর করতে হয়। তাই হেলিকপ্টার কিনেছি। ১৫ মার্চ হেলিকপ্টারটি চলে আসবে। আমার কাছে ২.৫ একর জমি আছে, যেখানে হেলিকপ্টারের জন্য হেলিপ্যাড ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো তৈরি করা হবে।”

জানা গেছে, প্রায় ১০০ কোটি টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি রয়েছে জনার্দন ভইরের। কৃষিকাজের পাশাপাশি দুধের ব্যবসা করেন তিনি। শুধু তাই নয়, ভিওয়ান্ডি এলাকায় বেশ কয়েকটি গুদামও রয়েছে তার। দেশের বেশ কয়েকটি অত্যন্ত বড় মাপের বাণিজ্যিক সংস্থা সেগুলো ভাড়া নিয়ে থাকে। ফলে সেখান থেকেও মোটা অঙ্কের আয় হয় জনার্দনের। এজন্য নিজের এলাকায় যথেষ্ট প্রতিপত্তিও রয়েছে তার।

গত রবিবার ট্রায়ালের জন্য হেলিকপ্টারটি তাদের গ্রামে এসেছিল। তখন গ্রামের পঞ্চায়েত সদস্যদের সেটিতে চাপিয়ে বেশ কিছুক্ষণ আকাশে ঘুরিয়ে আনেন ওই কৃষক।  সূত্রঃ সংবাদ প্রতিদিন।

রিপ্লে করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here