ভিডিও সহ দেখুন:

শ্রীলঙ্কা উপকূলে ডুবে গেল তেল ও রাসায়নিকবাহী জাহাজ

0
21

শ্রীলঙ্কা উপকূলে তেল ও রাসায়নিকবাহী জাহাজ ডুবির ঘটনায় পরিবেশের মারাত্মক বিপর্যয়ের আশঙ্কা করা হচ্ছে। বিশেষ করে কয়েক হাজার টন তেল ছড়িয়ে পড়লে সমুদ্রের জীববৈচিত্র ধ্বংস হয়ে যেতে পারে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন পরিবেশ বিজ্ঞানীরা।

দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম এলএন ডব্লিউ জানায়, টানা দুই সপ্তাহ শ্রীলঙ্কার উপকূলে সিঙ্গাপুরের রাসায়নিক বোঝাই কার্গো জাহাজে আগুনে পোড়ার পর বুধবার এটি ডুবতে থাকে। শ্রীলঙ্কা ও ভারতের নৌবাহিনী এক্সপ্রেস পার্ল নামে জাহাজের দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকা আগুন নেভাতে সর্বাত্মক চেষ্টা করে। শত চেষ্টার পরও জাহাজ ভেঙে ডুবে যাওয়া থেকে রক্ষা করতে পারেনি তারা। অবশেষে ডুবে যায় এক্সপ্রেস পার্ল।

ডুবে যাওয়া কার্গো জাহাজের কয়েক হাজার টন জ্বালানি তেল সাগরের পানিতে ছড়িয়ে পড়লে বড় ধরনের ভয়াবহ পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এতে সামুদ্রিক প্রাণী ও জীববৈচিরের ওপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

নেগোম্বো শহরে দেশটির সবচেয়ে প্রাচীন সমুদ্রসৈকতে এরইমধ্যে কয়েকদিন ধরে তেল ও দুষিত আবর্জনা দেখা যাচ্ছে। জাহাজডুবির কারণে পরিবেশ বিপর্যয়ের সরাসরি প্রভাব জেলেদের ওপর পড়তে পারে বলে সতর্ক করেছেন পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা।

দেশটির পরিবেশ বিশেষজ্ঞ বলেন, অনেক জেলে কর্মহীন হয়ে পড়বেন। আমরা এটা হতে দিতে পারি না। জেলে সংগঠনের উচি জাহাজডুবির সঙ্গে জড়িতদের বিচারের মুখোমুখি করা।

তবে নেগেম্বো লেগুন ও আশপাশের এলাকাগুলোকে দুষিত আবর্জনা ও তেল ছড়িয়ে পড়া রোধে পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন শ্রীলঙ্কান মৎস্যমন্ত্রী। জাহাজ প্রবেশে দুটি দেশ অনুরোধ প্রত্যাখ্যানের পর শ্রীলঙ্কা নিজেদের জলসীমায় জাহাজটিকে প্রবেশের অনুমতি দিলে দেশটির সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়।

১৫ মে ভারতের গুজরাট রাজ্যের হাজিরা বন্দর থেকে রওনা হওয়া এক্সপ্রেস পার্লে ১ হাজার ৪৮৬টি কন্টেইনারে ২৫ টন নাইট্রিক এসিডসহ অন্যান্য আরও কিছু রাসায়নিক ও কমমেটিকস ছিল।

দেখুন ভিডিও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here