রাবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

0
55
ফাইল ছব্জ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথমবর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে আগামী ৪ অক্টোবর। শেষ হবে ৬ অক্টোবর। এ বছর তিনটি ইউনিটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩১ শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক প্রফেসর ড. আজিজুর রহমান।

চলতি বছরের ভর্তি পরীক্ষায় সি ইউনিটে ৪৪ হাজার ১৯৪ জন, এ ইউনিটে ৪৩ হাজার ৫৫৮ জন ও বি ইউনিটে ৩৯ হাজার ৮৯৫ জন। তিনটি ইউনিটে বিশেষ কোটা বাদে ৪ হাজার ১৭৩টি আসনের বিপরীতে মোট ১ লাখ ২৭ হাজার ৬৪৭ জন ভর্তিচ্ছু অংশ নিবে।

জনসংযোগ প্রশাসক জানান, ৪ অক্টোবর সোমবার (বিজ্ঞান) সি ইউনিট, ৫ অক্টোবর মঙ্গলবার (মানবিক) এ ইউনিট ও ৬ অক্টোবর বুধবার (বাণিজ্য) বি ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিন ৩ শিফটে সকাল ৯:৩০ থেকে ১০:৩০ মিনিট, দুপুর ১২ থেকে ১টা ও বিকেল ৩ থেকে ৪টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

হিসাব করে দেখা গেছে, প্রতি আসনের বিপরীতে ৩১ জন শিক্ষার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

জানা গেছে, অনুষ্ঠিতব্য ভর্তি পরীক্ষার জন্য সম্প্রতি রাবি প্রশাসন মহানগরীর আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সভা করেছেন। এছাড়াও ক্যাম্পাসে মানসম্মত খাদ্য ও পানি সরবরাহ, স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণ, টয়লেট ব্যবস্থা, ট্রাফিক ব্যবস্থাসহ সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

এদিকে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করার জন্য প্রত্যেক ভবনের গেটে ডিজিটাল থার্মোমিটার দিয়ে শরীরের তাপমাত্রা মাপা হবে। জরুরি চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টার এবং রাজশাহী মেডিকেল কলেজের অ্যাম্বুলেন্স সেবা চালু থাকবে।

ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয় অভিমুখে আগত সব গাড়ি কাজলা গেট দিয়ে, কাটাখালী থেকে বিশ্ববিদ্যালয় অভিমুখে আগত সব গাড়ি বিনোদপুর গেট দিয়ে প্রবেশ করবে এবং মেইন গেট দিয়ে বের হবে। চারুকলা গেট দিয়ে সকল প্রকার যানবাহন প্রবেশ বন্ধ থাকবে।

এদিকে আবাসিক হল বন্ধ রেখে প্রথমবারের মতো রাবির ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা বলছেন, ভর্তি পরীক্ষাকে ঘিরে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ভর্তিচ্ছু ও অভিভাবকসহ প্রায় দেড় লাখ মানুষের সমাগম হবে। এর আগের বছরগুলোতে ভর্তি পরীক্ষার সময় ভর্তিচ্ছুদের অধিকাংশই ক্যাম্পাসের হলগুলোতে অবস্থান করতেন। তবে এবার আবাসিক হল বন্ধ থাকায় তীব্র আবাসন সংকট মোকাবিলা করতে হতে পারে।

সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী মনিরুল ইসলাম বলেন, আগের বছরগুলোতে ভর্তিচ্ছুরা এসে হলে মসজিদ, টিভি রুম, ডাইনিংসহ বিভিন্ন ফাঁকা জায়গায় থাকার সুযোগ পেত। তবে এবার আবাসিক হল বন্ধ থাকায় তাদের তীব্র আবাসন সংকট মোকাবিলা করতে হবে। আবাসিক হল বন্ধ রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বর্ষের পরীক্ষা শুরু হওয়ায় শিক্ষার্থীরা ইতোমধ্যেই নগরীর বিভিন্ন মেসে অবস্থান করছে। এরপরও ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা মেসে উঠবে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভর্তিচ্ছু ছাত্রদের আবাসিকতার ব্যবস্থা না করলেও নিরাপত্তার কথা ভেবে ভর্তিচ্ছু ছাত্রীদের আবাসিকতার ব্যবস্থা করেছে। ছাত্রীদের জন্য স্থান সংকুলান সাপেক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হলসমূহের কমন স্পেস টিভি রুম, ওয়েটিং রুম, হল রুম, নামাজ ঘর ইত্যাদি স্থানে অবস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে অভিভাবকদের বসার জন্য ক্যাম্পাসে নির্ধারিত কয়েকটি স্থানে ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ভর্তি পরীক্ষা চলাকালে পরীক্ষা কক্ষসহ পুরো ক্যাম্পাস চার স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যবস্থার আওতায় থাকবে। পরীক্ষা সংক্রান্ত যে কোনো ধরনের অপরাধ যেমন, অসদুপায় অবলম্বন, আর্থিক লেনদেন, ভুয়া ও ভাড়াটে পরীক্ষার্থীর তৎপরতা, ওএমআর শিট পরিবর্তন ইত্যাদিসহ অন্য যে কোনো অপরাধ কঠোরভাবে দমন করা হবে। এ জাতীয় যে কোনো ধরনের অপরাধের বিচারে সার্বক্ষণিক মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হবে।

পরীক্ষা কক্ষের শৃঙ্খলা ভঙ্গসহ উপরিউক্ত যে কোনো অনিয়মের সন্ধান পেলে রাবি প্রক্টর ০১৭১১-৫৭৪৮৬৩, মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ০১৩২০-০৬১৬২৩ অবগত করার আহবান জানানো হয়েছে।  ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট www.ru.ac.bd -এর admission মেন্যু থেকে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ University of Rajshahi-তে দেখা যাবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here