ঘরোয়া উপকরণে দূর হবে চোখের নিচে কালো দাগ

0
45
ফাইল ছবি।

চোখ যে শুধু মনের কথা বলে তা নয়, সৌন্দর্যের কথাও বলে। কিন্তু সেই চোখের নিচে কালো দাগ হলে, তা শুধুমাত্র চোখের জন্যই খারাপ নয় বরং কালো ছাপ দীর্ঘস্থায়ী হলে ত্বকের জন্যও তা ভীষণ ক্ষতিকর।

নিত্যদিনের কর্মব্যস্ততায় ক্লান্তি ভর করে শরীরে তাই কালো দাগ ঠেকাতে প্রয়োজনী পদক্ষেপ নেওয়া হয়না। এই দাগ ক্রমশ বাড়তে থাকলে মুখের সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়।

চোখের নিচে কালো দাগ নিয়ে যারা চিন্তায় রয়েছেন, ঘরোয়া কিছু উপকরণের সাহায্যেই দূর করতে পারেন এই দাগ। জেনে নিন যেভাবে চোখের নিচে কালো দাগ দূর করতে পারবেন-

টমেটো

টমেটোকে প্রাকৃতিক ব্লিচ বলা হয়। এটি কালো দাগ হালকা করতে সাহায্য করে। টমেটোর রসের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে চোখের চারপাশে লাগান। খেয়াল রাখবেন মিশ্রণটি যেন চোখের ভেতর না যায়। এভাবে ১০ মিনিট রাখুন।

নারকেল তেল

চোখের চারপাশে নারকেল তেল ম্যাসাজের ফলে ত্বক কোমল হয় ও বলিরেখা দূর হয়। রাতে ঘুমোনোর আগে চোখের চারপাশে নারকেল তেল ম্যাসাজ করতে পারেন। নিয়মিত ব্যবহারে ভালো ফলাফল পাবেন।

আলুর ব্যবহার

আলুতে রয়েছে ন্যাচারাল ব্লিচ এজেন্ট। এটি চোখের কালো দাগ দূর করে, ফোলাভাব কমায় ও ক্লান্তি দূর করতে সাহায্য করে। আলু রস করে ফ্রিজে রেখে দিন। দিনের শেষে কটনবলের সাহায্যে চোখের ওপর রাখুন। এভাবে ১০-১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। গোলাপজল চোখের ক্লান্তি দূর করে। এস্ট্রিনজেন্ট সমৃদ্ধ হওয়ায় গোলাপজল টোনার হিসেবেও ভালো কাজ করে।

শসা ও লেবুর রস

শসা ও লেবুর রস একই অনুপাতে মেশান। এবার তাতে কটন বল ভিজিয়ে চোখের ওপর ১৫ মিনিট দিয়ে রাখুন। লেবু ভিটামিন সির উৎস। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে ও চোখের কালো দাগ দূর করে। শসার ব্যবহারে চোখের আরামবোধ হয়। এটি কালো দাগ দূর করে ত্বককে দীপ্তিময় করে তোলে। শসা পাতলা করে কেটে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করুন। চোখের ওপর শসার স্লাইস ১৫-২০ মিনিট রেখে পানির ঝাপটা দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে দিনে দুবার ব্যবহার করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here