ঠাকুরগাঁওয়ে দামি শাড়ি না দেওয়ায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

0
30
সংগৃহীত ছবি।

ঠাকুরগাঁওয়ে পূজায় দামি শাড়ি কিনে না দেওয়ায় স্বামীর সাথে অভিমান করে নিজ বসতবাড়িতে আত্মহত্যা করেছেন দিথি রাণী (১৮) নামে এক গৃহবধূ।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ৬নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নের কচুবাড়ী নাফিত পাড়া গ্রামে গতকাল রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। দিথি রাণী সদর উপজেলার আউলিয়াপুর ইউনিয়নের কচুবাড়ী নাপিতপাড়া গ্রামের ভমর রায়ের স্ত্রী।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, গত দেড় মাস আগে নিজের বড় বোনের দেবরের সাথে প্রেম করে রাণীর বিয়ে হয় স্বামী ভমর রায়ের সাথে। ভূল্লী বাজারে রবিবার স্বামীর কাছে দামি শাড়ি কিনতে চাইলে শাড়ি না দেওয়ায় বাসায় গিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। অভিমানে রাতে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দেন।

তার স্বামী ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর হাসপাতাল নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

স্বামী ভমর রায় বলেন, ভাইয়ের শালিকাকে প্রেম করে বিয়ে করি। আমি রাজমিস্ত্রীর কাজ করায় তেমন রোজগার না থাকায় সংসারে অভাব অনটন লেগে থাকতো। পূজায় দামি শাড়ী কিনে দিতে না পারায় অভিমানে বাসায় এসে গলায় ফাঁস লাগায় রাণী।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তানভীরুল ইসলাম জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here