মা-মেয়েকে গণধর্ষণ :

স্বীকারোক্তির পর দুই আসামি কারাগারে

0
80
সংগৃহীত ছবি।

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় মা-মেয়েকে দলবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার দুই ব্যক্তি পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। পরে আজ সোমবার তাঁদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

নালিতাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, মামলায় গ্রেপ্তার আবদুস সাত্তার (৪৫) ও সাদেক মিয়া (৩০) দলবদ্ধভাবে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। সোমবার নালিতাবাড়ী আমলি আদালতে হাজির করা হলে বিচারক সুলতান মাহমুদ তাঁদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আরও পড়ুনঃ শেরপুরে মা-মেয়েকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ২

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার সকালে শেরপুর সদর উপজেলার গৃহবধূ তার কিশোরী (১৬) মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে নালিতাবাড়ীর পলাশিকুড়া গ্রামে বাবার বাড়ি বেড়াতে আসেন। এদিন বেলা ১১টার দিকে রাস্তায় দেখা ও কথা হয় বাবার বাড়ির প্রতিবেশী সাত্তার ও সাদেকের সাথে। এসময় ওই গৃহবধূর সেই দুই প্রতিবেশী মা-মেয়েকে সাথে নিয়ে সারাদিন নালিতাবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ঘোরাঘুরির প্রস্তাব দেয়। মা-মেয়ে বিশ্বাস করে বাবার বাড়ির দুই প্রতিবেশীর সাথে নালিতাবাড়ীর বিভিন্ন স্থানে ঘোরাঘুরি করে।

রাতে পুনরায় মা-মেয়েকে পলাশিকুড়া গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপরে তাদের কৌশলে একটি নির্মাণাধীন জনশূন্য পলাশিকুড়ার বাড়িতে নিয়ে স্থানীয় সাত ব্যক্তি মিলে মা-মেয়েকে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

রবিবার সকালে ধর্ষণের শিকার মা-মেয়ে পলাশিকুড়াস্থ বাড়ি ফিরে ঘটনা প্রকাশ করলে স্বজনরা ৯৯৯ নম্বরে ফোন করেন। পরে নালিতাবাড়ী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা  ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণে অভিযুক্ত সাত্তার (৪৫) ও সাদেক আলীকে (৩০) আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here